ফটোগ্রাফি ই-বুক (২)

ষ্ট্রিট ফটোগ্রাফি অনেকের কাছেই খূব প্রিয়। ক্যামেরা সাথেই থাকে, সূযোগ পেলেই … ক্লিক। এখন অবশ্য হাতে হাতে মোবাইল, ফটোগ্রাফার নন এমন লোকও ফটো তুলছেন দেদার। হয়তো এদের মধ্যে কেউ কেউ একসময় ফটোগ্রাফির প্রতি ব্যাপক ভালবাসা অনুভব করবেন এবং ফটোগ্রাফার হওয়ার চেষ্টা করবেন।

আজ ষ্ট্রিট ফটোগ্রাফির উপর বেশ কিছু ই-বুক এর কথা জানাবো। তবে সবগুলো ই-বুকই একজনের লেখা। তিনি থমাস লুথার্ড (Thomas Leuthard), থমাস সুইজারল্যান্ডের ফটোগ্রাফার। ২০০৮ সাল থেকে ফটোগ্রাফি করছেন। ২০০৯ সালে তিনি সিদ্ধান্ত নেন শুধূমাত্র ষ্ট্রিট ফটোগ্রাফি করার। তবে ২০১৭ সাল থেকে তিনি ফটোগ্রাফি থেকে বিরত রয়েছেন। (সূত্র : উইকিপিডিয়া)

ইবুক গুলো এখন পর্যন্ত ফ্রি, যদিও বেশ কিছু সাইট থেকে এই ইবুকগুলো সরিয়ে ফেলা হয়েছে। ইবুক এর পাশাপাশি তার লাইটরুম প্রিসেট এবং ষ্ট্রিট ফটোগ্রাফির উপর টিউটোরিয়াল আছে। তবে সেগুলো আপনাকে কিনতে হবে। ইবুকগুলো মূলত তার তোলা ছবি দিয়ে তৈরী হয়েছে। হয়তো নিয়মিত দেখলে আপনিও অনুপ্রানিত হতে পারেন অথবা নতুন কোন আইডিয়া পেতে পারেন।

Thomas Leuthard

হ্যাপি ক্লিকিং …

এই লিংক থেকে ডাউনলোড করুন ১৪টি ইবুক

রিফাত জামিল ইউসুফজাই

জাতিতে বাঙ্গালী, তবে পূর্ব পূরুষরা নাকি এসেছিলো আফগানিস্তান থেকে - পাঠান ওসমান খানের নেতৃত্বে মোঘলদের বিরুদ্ধে লড়াই করতে। লড়াই এ ওসমান খান নিহত এবং তার বাহিনী পরাজিত ও পর্যূদস্ত হয়ে ছড়িয়ে পড়ে টাঙ্গাইলের ২২ গ্রামে। একসময় কালিহাতি উপজেলার চারাণ গ্রামে থিতু হয় তাদেরই কোন একজন। এখন আমি থাকি বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায়। কোন এককালে শখ ছিলো শর্টওয়েভ রেডিও শোনা। প্রথম বিদেশ ভ্রমণে একমাত্র কাজ ছিলো একটি ডিজিটাল রেডিও কেনা। ১৯৯০ সালে ষ্টকহোমে কেনা সেই ফিলিপস ডি ২৯৩৫ রেডিও এখনও আছে। দিন-রাত রেডিও শুনে রিসেপশন রিপোর্ট পাঠানো আর QSL কার্ড সংগ্রহ করা - নেশার মতো ছিলো সেসময়। আস্তে আস্তে সেই শখ থিতু হয়ে আসে। জায়গা নেয় ছবি তোলা। এখনও শিখছি এবং তুলছি নানা রকম ছবি। কয়েক মাস ধরে শখ হয়েছে ক্র্যাফটিং এর। মূলত গয়না এবং নানা রকম কার্ড তৈরী, সাথে এক-আধটু স্ক্র্যাপবুকিং। সাথে মাঝে মধ্যে ব্লগ লেখা আর জাবর কাটা। এই নিয়েই চলছে জীবন বেশ।