এমি’জ আইডিয়া ক্র্যাফট (তিজোরি বাজার)

ক্র্যাফটিং ম্যাটেরিয়াল সাপ্লায়ার রিভিউ : এমি’জ আইডিয়া ক্র্যাফট

প্রথম কোন অনলাইন শপ থেকে ক্র্যাফট আইটেম অর্ডার করেছিলাম মনে নেই, তবে এখন পর্যন্ত উম্মে সায়মা এর কাছ থেকেই সবচেয়ে বেশী বার অর্ডার করেছি। বলছিলাম এমি’জ আইডিয়া ক্র্যাফট (Amy’s Idea Craft) এর কথা। চমৎকার মিশুক এই মহিলার সাথে আমার কখনই সামনা-সামনি দেখা হয়নি, এমন কি ফোনেও কথা হয় নি। যা কথা হয়েছে সবই ফেসবুক মেসেজে, টাইপ করে।

তার কাছে বেশীবার অর্ডার করার বেশ কিছু কারণ আছে। একে তো আমি নিজে একেবারেই নতুন ক্র্যাফটিং এর ক্ষেত্রে। তারপর জিনিসপত্র তেমন কিছুই চিনতাম না। ব্যক্তিগত পারিবারিক কারণে বাইরে ঘোরাঘুরির করার সূযোগ আমার এখন খূবই সীমিত, তাই ইচ্ছে থাকলেও ঢাকার কোথায় কি ক্র্যাফটিং ম্যাটেরিয়াল পাওয়া যায় ঘুরে দেখার সময়-সূযোগ কোনটাই হয়নি। যদিও হালকা-পাতলা ধারণা আছে এ সম্পর্কে। যা বলছিলাম। শুরুতে অর্ডার করার সময় তাই ম্যাটেরিয়াল সম্পর্কে জানতে উম্মে সায়মার দ্বারস্থ হতে হতো। উনিও বেশ আন্তরিকতার সাথে জবাব দিতেন। জানা না থাকলে সরাসরিই বলেন জানা নাই। আর আমি বেশীরভাগ সময় বেশ বড় লিষ্ট করে অর্ডার দেই। একটা কারণ হলো কুরিয়ার চার্জ মিনিমাম রাখা। যদিও জানি ভ্যারাইটিজ আইটেম সর্টিং করা অনেক কঠিন এবং ঝামেলার কাজ। এই নিয়ে উম্মে সালমা কখনই অনুযোগ করেন নাই। আমার তৃতীয় অর্ডারে আইটেম ছিলো ২১ পদের, সাথে আবার উপপদ ছিলো বেশ কয়েকটা। আর আইটেম ছিলো বেশীর ভাগই পুতি (Beads), বুঝতেই পারছেন কি অবস্থা।

এমি’জ আইডিয়া ক্র্যাফট কি বিক্রি করে ? এক কথায় অনেক কিছুই। তার মধ্যে বিভিন্ন ধরণের পুতি আছে। সিড বিডস পাবেন ১২ কালারের, মার্বেল বিডস আছে ১৬ কালারের, আর্টিফিশিয়াল পার্ল, রেইনবো বিডস, প্লাষ্টিক বিডস, উডেন বিডস, মেটাল বিডস, বিভিন্ন ধরণের এবং শেপের ক্রিষ্টাল বিডস সহ আরো নানা রকম বিডস। সেই সাথে যারা জুয়েলারি নিয়ে কাজ করতে চান তাদের জন্য আছে নানা আইটেম, যেমন – আইলেট পিন, বলহেড পিন, জাম্প রিং, ইয়াররিং বেস, আংটি’র বেস, তার এমন কি জুয়েলারি তৈরীর জন্য প্রয়োজনীয় প্লায়ার্স এবং কাটার। বিভিন্ন ধরণের গ্লু / গাম পাবেন, সেই সাথে গ্লু গান এবং গ্লু ষ্টিক। সেই সাথে আছে সাধারণ সুতা, রক সুতা এবং ইলাষ্টিক সুতা। আরো পাবেন উল আর এমব্রোডয়ারির সুতা। বিভিন্ন রং এর মধ্যে পাবেন পোষ্টার কালার, গ্লাস পেইন্ট, এক্রিলিক পেইন্ট, ওয়েল পেইন্ট (টিউব) এবং স্প্রে পেইন্ট। ইদানিং ছোট, মাঝারী এবং বড়সাইজের পাঞ্চ পাওয়া যাচ্ছে বেশ কিছু, আছে মেমোরি ওয়্যার, চেইন, ওয়াসি টেপ। আছে থাই ক্লে (এয়ার ড্রাই ক্লে) এবং কয়েক পদের সিলিকন মোল্ড। আর ক্লে নিয়ে কাজ করার জন্য আছে ২ ধরণের টুলস। ছোট ছোট চার্ম আছে কিছু, আছে পপসিকল (আইসক্রিমের কাঠি), কাগজ /কাপড় এর তৈরী ফুল, বিভিন্ন কালারের রিবন ইত্যাদি। ক্র্যাফটিং এর উপর একটি বই ও আছে আইটেম লিষ্টে। আছে ফেল্ট এবং ফোম শিট।

তবে উম্মে সায়মা এমি’র যে জিনিসটা বেশী ভাল লাগে তা হলো তার রেগুলার আইটেমের বাইরে অন্য কোন আইটেম এর ব্যাপারে বললে খোজ নিয়ে এসে দেয়া। আমি একবার প্যারাকর্ড খোঁজ করেছিলাম, এমি ঠিকই সেটা যোগাড় করে পাঠিয়ে দিয়েছেন। রিসেন্টলি এয়ার ড্রাই ক্লে দিয়ে পেনডেন্ট তৈরীর জন্য কুকি কাটার খোঁজ করছিলাম, সেটাও চলে আসছে।

এমি’জ আইডিয়া ক্র্যাফট মোটামুটি ২-৪ দিনের মধ্যে ডেলিভারী দিতে সক্ষম। ঢাকার ভিতর ক্যাশ অন হোম ডেলিভারি (ডেলিভারি চার্জ ৭০ টাকা)। ঢাকার বাইরে অগ্রিম বিকাশ পেমেন্ট (কুরিয়ার চার্জ ৮০ টাকা)। জিনিসের দাম এবং মান ভালই, একমাত্র পপসিকল এর মান বলা চলে ‘বিলো এভারেজ’।

আপনি যদি ক্র্যাফটিং এর ব্যাপারে আগ্রহী হন, ম্যাটেরিয়াল এর ব্যাপারে নিশ্চিন্তে এমি’জ আইডিয়া ক্র্যাফট এর উপর আস্থা রাখতে পারেন।

পুনশ্চ : ক্র্যাফট ম্যাটেরিয়ালের বাইরে বিভিন্ন ধরণের LED ফেইরি লাইট পাবেন
আপডেট : নাম পরিবর্তন করে এমি’জ আইডিয়া ক্র্যাফট এখন তিজোরি

ফেসবুক গ্রুপ : Tijori Bazar (এমি’জ আইডিয়া ক্র্যাফট)
ফেসবুক পেজ : Tijori

রিফাত জামিল ইউসুফজাই

জাতিতে বাঙ্গালী, তবে পূর্ব পূরুষরা নাকি এসেছিলো আফগানিস্তান থেকে - পাঠান ওসমান খানের নেতৃত্বে মোঘলদের বিরুদ্ধে লড়াই করতে। লড়াই এ ওসমান খান নিহত এবং তার বাহিনী পরাজিত ও পর্যূদস্ত হয়ে ছড়িয়ে পড়ে টাঙ্গাইলের ২২ গ্রামে। একসময় কালিহাতি উপজেলার চারাণ গ্রামে থিতু হয় তাদেরই কোন একজন। এখন আমি থাকি বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায়। কোন এককালে শখ ছিলো শর্টওয়েভ রেডিও শোনা। প্রথম বিদেশ ভ্রমণে একমাত্র কাজ ছিলো একটি ডিজিটাল রেডিও কেনা। ১৯৯০ সালে ষ্টকহোমে কেনা সেই ফিলিপস ডি ২৯৩৫ রেডিও এখনও আছে। দিন-রাত রেডিও শুনে রিসেপশন রিপোর্ট পাঠানো আর QSL কার্ড সংগ্রহ করা - নেশার মতো ছিলো সেসময়। আস্তে আস্তে সেই শখ থিতু হয়ে আসে। জায়গা নেয় ছবি তোলা। এখনও শিখছি এবং তুলছি নানা রকম ছবি। কয়েক মাস ধরে শখ হয়েছে ক্র্যাফটিং এর। মূলত গয়না এবং নানা রকম কার্ড তৈরী, সাথে এক-আধটু স্ক্র্যাপবুকিং। সাথে মাঝে মধ্যে ব্লগ লেখা আর জাবর কাটা। এই নিয়েই চলছে জীবন বেশ।